রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২, ০২:২৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
শিরোনাম:
ডেমোগ্রাফিক ডিভিডেন্টের সুবিধা নিতে হলে শরীরচর্চার বিকল্প নেই – ডেপুটি স্পীকার গোবিন্দগঞ্জের সাঁওতাল নারীদের ক্রীড়া ও ঐতিহ্যবাহী তীর ছোড়া প্রতিযোগিতা ও সাংস্কৃতিক উৎসব গাইবান্ধা জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের আনুষ্ঠানিক দায়িত্ব গ্রহণ সাদুল্লাপুরে ব্যবসায়ী জ্যোতিশ চন্দ্র রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ কুড়িগ্রামে মহিষের গাড়ীতে বিয়ে আত্রাইয়ের মনিয়ারী ইউনিয়ন আ”লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত গোবিন্দগঞ্জে ইয়াবা ও ফেন্সিডিলসহ দুই মাদক ব্যবসায়ি আটক সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মামলা, প্রতিবাদে গাইবান্ধায় মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ গাইবান্ধা প্রেসক্লাবের কার্যনির্বাহী কমিটির বিশেষ সভা গাইবান্ধার তুলশিঘাটে বাস চাপায় নানি-নাতনি নিহত

হোস্টেল ফি বৃদ্ধির প্রতিবাদে ভারতে ছাত্র আন্দোলন

নিজস্ব প্রতিবেদক / ১৪৮ বার পঠিত
প্রকাশের সময়: রবিবার, ২৪ নভেম্বর, ২০১৯, ৬:৫৮ পূর্বাহ্ন

খোঁজ খবর ডেস্ক: হোস্টেল ফি বৃদ্ধির প্রতিবাদে ভারতের শীর্ষ বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে গত একমাস যাবত আন্দোলন চলছে। এ নিয়ে জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রদের সাথে পুলিশের সংঘর্ষ বাধে।

এ সময় সাশি বুসান পান্ডে নামক দৃষ্টি প্রতিবন্ধি এক শিক্ষার্থীর উপর পুলিশের চড়াও হওয়ার ভিডিও সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। ভিডিওতে দেখা যায় পুলিশকে ছাত্রটি তার চশমা দেখিয়ে চোখে দেখেনা দাবি করলেও পুলিশ তাকে হেনস্থা করে। গত একমাস আগে নতুন করে হোস্টেল ফি, বিদ্যুৎ বিল বৃদ্ধির প্রতিবাদে এ আন্দোলন ছড়িয়ে পড়ে।

নতুন প্রস্তাবিত ফি কাঠামো অনুযায়ি ছাত্রদেরকে হলে থাকার জন্য বছরে ১,৮০০ রুপি থেকে ৩,৬০০ রুপি দিতে হবে। যেখানে আগে প্রতি বছরে তাদেরকে ১২০ থেকে ২৪০ রুপি দিতে হতো। অনেকে এ নতুন কাঠামোকে শিক্ষার জন্য প্রতিবন্ধক বলছে, বিশেষ করে দরিদ্র পরিবারের শিক্ষার্থীদের জন্য।

সরকারী চাকুরি এবং প্রাইভেট প্রতিষ্ঠানে পড়াশোনা করা অধিকাংশ ভারতীয় শিক্ষার্থীদের সামর্থের বাইরে। তবে বিখ্যাত এ বিশ্ববিদ্যালয়টি এ ক্ষেত্রে কম টাকায় শিক্ষা প্রদান করে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে।

আলি যাদেভ নামক এক ছাত্র ৪৬৩ জন শিক্ষার্থীর উপর এক গবেষণায় দেখান যে, এখানে পড়তে আসা ৪২% শিক্ষার্থীর পরিবারের বার্ষিক আয় ২ হাজার ডলারের কম। ছাত্রদের অধিকাংশ তাদের খরচ বাচানোর জন্য মাইলের পর মাইল পায়ে হেটে চলাচল করে জুতা ক্ষয় করে টেক্সি ভাড়া না করে। তাদের অনেকে পরিবারের ঋণ শোধ করার জন্য কাজ করে। যাভেদ প্রশ্ন রাখেন এ সমস্ত দরিদ্র ছাত্রদের শিক্ষার জন্য কি কোন প্রতিষ্ঠান থাকবে না?

উল্লেখ্য, প্রায় ৮ হাজার শিক্ষার্থীর মধ্যে এ প্রতিষ্ঠানে ৬০% শিক্ষার্থী হোস্টেলে থাকে।


এ জাতীয় আরো খবর
এক ক্লিকে বিভাগের খবর