শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ০৫:২১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
শিরোনাম:
অপহরন ও ধর্ষন মামলায় ধর্ষকের ৪৬ বছরের কারাদন্ড গাইবান্ধায় মাদক মামলায় একজনের মৃত্যুদন্ড, হত্যা মামলায় একজনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড ডেমোগ্রাফিক ডিভিডেন্টের সুবিধা নিতে হলে শরীরচর্চার বিকল্প নেই – ডেপুটি স্পীকার গোবিন্দগঞ্জের সাঁওতাল নারীদের ক্রীড়া ও ঐতিহ্যবাহী তীর ছোড়া প্রতিযোগিতা ও সাংস্কৃতিক উৎসব গাইবান্ধা জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের আনুষ্ঠানিক দায়িত্ব গ্রহণ সাদুল্লাপুরে ব্যবসায়ী জ্যোতিশ চন্দ্র রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ কুড়িগ্রামে মহিষের গাড়ীতে বিয়ে আত্রাইয়ের মনিয়ারী ইউনিয়ন আ”লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত গোবিন্দগঞ্জে ইয়াবা ও ফেন্সিডিলসহ দুই মাদক ব্যবসায়ি আটক সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মামলা, প্রতিবাদে গাইবান্ধায় মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে মাদক, অস্ত্র ও অপরাধ বেড়েছে

কক্সবাজার প্রতিনিধি / ৫৫ বার পঠিত
প্রকাশের সময়: বুধবার, ১৬ নভেম্বর, ২০২২, ১:০৪ অপরাহ্ন

কক্সবাজারের উখিয়া ও টেকনাফের ৩৩টি রোহিঙ্গা ক্যাম্পে মাদক, অস্ত্র ও অপরাধ বেড়েছে। পুরো  ক্যাম্প যেন মাদকের হাটে পরিনত হয়েছে। এই মাদক বিক্রির টাকার ভাগাভাগি নিয়ে চলে খুনোখুনি, মারামারি ও আধিপত্য বিস্তার। রোহিঙ্গা ও স্থানীয়রা মিলে রোহিঙ্গা শিবিরকে মাদকের হাট বানিয়ে তুলেছেন বলে দকদ্রব্য নিয়ন্ত্রনে কাজ করা বিভিন্ন কর্তৃপক্ষের দাবী।
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে,  গত ৬ মাসে অন্তত ৫০ কোটি টাকা মূল্যের ইয়াবা ও আইস আটক করেছে আইন প্রয়োগকারী সংস্থা। সর্বশেষ গত ৭ নভেম্বর রোহিঙ্গা দম্পতি সওকত ইসলাম ও তার স্ত্রী মর্জিনা বেগম কে মাদক বিক্রির ১ কোটি ১৭ লাখ টাকা ও ৫ হাজার পিস ইয়াবাসহ চট্টগ্রাম চান্দগাঁও আবাসিক এলাকা থেকে গ্রেফতার করে র‍্যাব ৭। অন্যদিকে কক্সবাজার র‍্যাব ১৫ অভিযান চালিয়ে গত ৪ নভেম্বর উখিয়ার বালু খালী পান বাজার এলাকা থেকে মরজিন নামের এক রোহিঙ্গা নারীর দেহ তল্লাসী করে ৩০ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করে। এর আগে কক্সবাজার ৩৪ বিজিবি উখিয়ার রহমতের বিল ও রাজাপালং আমতলী ও রেজু আমতলীতে পৃথক অভিযান চালিয়ে তিন রোহিঙ্গা সহসহ ৭০ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করেছেন।

গত ১৫ জুলাই টেকনাফ নয়াপাড়া ক্যাম্পে বসতঘরে মাটির নিচে লুকিয়ে রাখা নগদ ২০ লাখ টাকা উদ্ধার করা হয়। টেকনাফের নয়াপাড়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পের আই-ব্লকের সুলতানের ঘরে অস্ত্র ও মাদকের চালান মজুতের খবরে অভিযানে যায় এপিবিএনের একটি দল। বাড়ি ঘিরে ফেললে পালিয়ে যায় একজন।

পরে ক্যাম্পের বাসিন্দা সুলতানের বসতঘরে তল্লাশি চালানো হয়। এ সময় নুর বারেক নামে এক রোহিঙ্গাকে আটক করা হয়। তার স্বীকারোক্তি অনুযায়ী মেঝে খুঁড়ে পাওয়া যায় একটি প্লাস্টিকের বালতি। মুখ খুলতেই বেরিয়ে আসে একের পর এক টাকার বান্ডিল।

কক্সবাজারের উখিয়া ও টেকনাফের ৩৩টি ক্যাম্পে মাদক, অস্ত্র ও অপরাধমুক্ত করতে অভিযান অব্যাহত আছে বলেও জানান ১৪ এপিবিএনের অধিনায়ক অতিঃ ডিআইজি সৈয়দ হারুনর রশীদ। এ ছাড়া, পুলিশ, র‍্যাব, বিজিবি, এপিবিএন, কোষ্টগার্ড ও মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর গত মাসে অভিযান চালিয়ে প্রায় এক কোটি ইয়াবাসহ ১৩৫ জন রোহিঙ্গা নারী পুরুষকে গ্রেফতার করা হয়েছে সারা দেশে। এমন তথ্য নিশ্চিত করেছেন সংশ্লিষ্ট মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর।


এ জাতীয় আরো খবর
এক ক্লিকে বিভাগের খবর