আজ ৫ মাঘ, ১৪২৮, ১৮ জানুয়ারি, ২০২২

কপ-২৬ সম্মেলনে কমনওয়েলথ প্যাভিলিয়নে প্রধান অতিথি হিসেবে ভাষণ দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

জলবায়ু সম্মেলনে প্রভাব বিস্তারকারীর তালিকায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

খোঁজ খবর ডেস্ক: স্কটল্যান্ডের গ্লাসগোতে শুরু হওয়া কপ২৬ জলবায়ু সম্মেলনের ফলাফলে প্রভাব বিস্তার করতে পারেন বিশ্বের শীর্ষ পাঁচ বিশ্বনেতা। এই পাঁচ নেতার মধ্যে আছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও। বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী ছাড়াও তালিকায় আরও আছেনচীনের জলবায়ু বিষয়ক বিশেষ দূত শি ঝেং হুয়া, সৌদি আরবের আয়মান শাসলি, যুক্তরাজ্যের পরিবেশ প্রতিমন্ত্রী কপ২৬ সম্মেলনের প্রেসিডেন্ট অলোক শর্মা এবং স্পেনের বাস্তুসংস্থান রূপান্তরমন্ত্রী তেরেসা রিবেরা। খবর বিবিসির।

জলবায়ু সম্মেলনে প্রভাব বিস্তারকারী শীর্ষ পাঁচ নেতাকে নীতিনির্ধারক হিসেবে আখ্যায়িত করা হয়েছে।

পরিবেশ আন্দোলনকর্মী গ্রেটা থানবার্গ, স্যার ডেভিড অ্যাটেনবোর অন্যান্য বিশ্বনেতা যখন বেশিরভাগ গণমাধ্যমের দৃষ্টি আকর্ষণ করবেন তখন ১৯৭টি দেশকে জলবায়ু পরিবর্তনের প্রতিশ্রুতিতে আবদ্ধ করার মূল কাজ পড়বে স্বল্প পরিচিত কিছু কূটনীতিক, মন্ত্রী আলোচকদের ওপর।

একই সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ঝুঁকিপূর্ণদের কণ্ঠস্বর হিসেবে অভিহিত করা হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে সবচেয়ে বেশি হুমকির মুখোমুখি হওয়া ৪৮টি দেশের গ্রুপক্লাইমেট ভালনারেবল ফোরামেরপক্ষে অবস্থান নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সম্পর্কে বলা হয়েছে তিনি একজন অভিজ্ঞ এবং স্পষ্টভাষী রাজনীতিক। গত বছর বন্যার কারণে দেশের প্রায় এক চতুর্থাংশ পানির নিচে তলিয়ে যায়। কারণে দেশে ১০ লাখ ঘরবাড়ি হুমকির মুখে পড়ে। সম্মেলনের ভাষণে জলবায়ু পরিবর্তনের অভিজ্ঞতা হিসেবে প্রসঙ্গেও কথা বলবেন তিনি।

কার্ডিফ বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্কবিষয়ক বিশেষজ্ঞ . জেন অ্যালান বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মতো লোকজন জলবায়ু পরিবর্তনের এক মানবিক মুখ এবং জলবায়ু পরিবর্তন ইতোমধ্যে কেমন রূপ ধারণ করেছে সে ব্যাপারে অনুধাবন করতে বিশ্বনেতাদের শরণাপন্ন হতে পারেন।

প্রধানমন্ত্রীর গ্লাসগো বহরের সদস্য বাংলাদেশি আলোচক কামরুল চৌধুরীর মতে, সুস্পষ্ট লক্ষ্যকে সামনে রেখেই ঝুঁকিপূর্ণ দেশগুলো গ্লাসগোতে এসেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর