রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২, ১২:৩০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
শিরোনাম:
ডেমোগ্রাফিক ডিভিডেন্টের সুবিধা নিতে হলে শরীরচর্চার বিকল্প নেই – ডেপুটি স্পীকার গোবিন্দগঞ্জের সাঁওতাল নারীদের ক্রীড়া ও ঐতিহ্যবাহী তীর ছোড়া প্রতিযোগিতা ও সাংস্কৃতিক উৎসব গাইবান্ধা জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের আনুষ্ঠানিক দায়িত্ব গ্রহণ সাদুল্লাপুরে ব্যবসায়ী জ্যোতিশ চন্দ্র রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ কুড়িগ্রামে মহিষের গাড়ীতে বিয়ে আত্রাইয়ের মনিয়ারী ইউনিয়ন আ”লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত গোবিন্দগঞ্জে ইয়াবা ও ফেন্সিডিলসহ দুই মাদক ব্যবসায়ি আটক সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মামলা, প্রতিবাদে গাইবান্ধায় মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ গাইবান্ধা প্রেসক্লাবের কার্যনির্বাহী কমিটির বিশেষ সভা গাইবান্ধার তুলশিঘাটে বাস চাপায় নানি-নাতনি নিহত

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রীর সঙ্গে ভারতীয় হাইকমিশনারের সাক্ষাৎ

নিজস্ব প্রতিবেদক / ১৩৯ বার পঠিত
প্রকাশের সময়: রবিবার, ২৯ আগস্ট, ২০২১, ৬:১২ অপরাহ্ন
মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক ও ঢাকায় নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার বিক্রম কুমার দোরাইস্বামী।

খোঁজ খবর রিপোর্ট: মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হকের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন ঢাকায় নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার বিক্রম কুমার দোরাইস্বামী। আজ মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ে মন্ত্রীর দপ্তরে এ সাক্ষাৎ অনুষ্ঠিত হয়। এ সময়  মন্ত্রণালয়ের সচিব খাজা মিয়াসহ সংশ্লিষ্ট অন্যান্যরা  উপস্থিত ছিলেন।
সাক্ষাতে বাংলাদেশের সঙ্গে ভারতের সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক, বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ এবং দ্বিপাক্ষিক বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়। এ সময় মন্ত্রণালয়ের পক্ষ  হতে মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় গঠিত মুজিবনগর  সরকারের স্মৃতিবিজড়িত কলকাতার  থিয়েটার রোডের ৮ নম্বর বাড়ি বাংলাদেশের নিকট  হস্তান্তরের  অনুরোধ জানানো হয়। এছাড়া বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদের বৃত্তি, বীর মুক্তিযোদ্ধাদের চিকিৎসা, মুজিবনগরে স্বাধীনতা সড়ক নির্মাণ বিষয়ে ফলপ্রসু  আলোচনা হয়।
মন্ত্রী এ সময়  মহান মুক্তিযুদ্ধে ভারতীয় সরকার এবং জনগণের সহায়তার কথা কৃতজ্ঞচিত্তে স্মরণ করেন। মহান মুক্তিযুদ্ধে জীবনদানকারী  ভারতের মিত্রবাহিনীর কিছু সদস্যকে বাংলাদেশ সরকার সম্মাননা দিয়েছে  উল্লেখ করে মন্ত্রী  বাকি সদস্যদের সম্মাননা দেয়ার সময় ঠিক করতে হাইকমিশনারকে অনুরোধ   করেন।
ভারতীয় হাইকমিশনার বলেন, বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক পরীক্ষিত। মিত্রবাহিনীর সদস্যদের সম্মাননা প্রদান বাংলাদেশ-ভারত বন্ধুত্বকে আরও সুদৃঢ় করবে ।   আগামী ৬ ডিসেম্বর (ভারত কর্তৃক বাংলাদেশকে স্বীকৃতি প্রদান  দিবসে) মুক্তিযুদ্ধে আত্মদানকারী ভারতের মিত্রবাহিনীর সদস্যদের সম্মাননা দেয়া যেতে পারে বলে উল্লেখ করেন।
ভারতীয় হাইকমিশনার এসময়  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে  বাংলাদেশের অভূতপূর্ণ উন্নয়নের ভূয়সী প্রশংসা করেন।  বাংলাদেশের পাশাপাশি ভারতীয় জনগণও বঙ্গবন্ধুকে অত্যন্ত শ্রদ্ধা করে বলে  তিনি উল্লেখ করেন। বাংলাদেশের মহান স্বাধীনতার  সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে  বাংলাদেশের জনগণের আনন্দের অংশীদার হতে ভারত  ইচ্ছুক বলে তিনি জানান। মন্ত্রী এ সময় ভারতের হাইকমিশনারকে ‘Secret Documents of Intelligence Branch on Father of The Nation Bangabandhu Sheikh Mujibur Rahman’ গ্রন্থটি উপহার দেন।


এ জাতীয় আরো খবর
এক ক্লিকে বিভাগের খবর