মঙ্গলবার, ১৬ অগাস্ট ২০২২, ০৪:১৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
শিরোনাম:
দুই ছেলে ও স্ত্রী’র পাশে সমাহিত করা হয়েছে ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বী মিয়াকে গাইবান্ধায় ভুমিহীন ও গৃহহীনদের মধ্যে জমিসহ গৃহ হস্তান্তর গাইবান্ধায় স্কুল ছাত্রকে বস্তাবন্দি করে পানিতে চুবিয়ে হত্যা, তিন বন্ধু গ্রেফতার গাইবান্ধায় গৃহহীন ও ভূমিহীন মানুষদের ঘর বরাদ্দ উপলক্ষে জেলা প্রশাসকের প্রেস বিফ্রিং গাইবান্ধায় জেলা পরিষদের বৈদ্যুতিক পাখা বিতরণ পেঁয়াজ আমদানির ফলে কমেছে দাম ছেলে-বউয়ের নির্যাতনে ঘর ছাড়া বৃদ্ধা মা যমুনা গর্ভে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতল ভবন বিরাট দ্বিমুখী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ফার্নিচার মেলা, খেলাধুলা বন্ধ সৌদি আরবসহ মধ্যপ্রাচ্যে ঈদুল আজহা ৯ জুলাই

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গাড়িবহরে হামলাকারী গ্রেপ্তার

নিজস্ব প্রতিবেদক / ১৭৯ বার পঠিত
প্রকাশের সময়: শুক্রবার, ২০ আগস্ট, ২০২১, ১১:০৫ অপরাহ্ন
ছবি-সংগৃহীত

খোঁজ খবর ডেস্ক: ২০০২ সালের ৩০ আগস্ট সাতক্ষীরার কলারোয়ায় তৎকালীন বিরোধীদলীয় নেতা বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গাড়িবহরে হামলা মামলায় সাজাপ্রাপ্ত পলাতক এক আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। শুক্রবার (২০ আগস্ট) রাতে এক ক্ষুদে বার্তায় বিষয়টি নিশ্চিত করেছে ডিএমপির গণমাধ্যম ও গণসংযোগ শাখা।  তাকে কোথায় থেকে, কখন গ্রেপ্তার করা হয় এবং তার নাম-পরিচয় জানানো হয়নি ওই ক্ষুদে বার্তায়।

ক্ষুদে বার্তায় বলা হয়, আগামীকাল শনিবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানানো হবে।

২০০২ সালের ৩০ আগস্ট সাতক্ষীরায় একজন মুক্তিযোদ্ধার ধর্ষিতা স্ত্রীকে হাসপাতালে দেখে মাগুরায় ফিরে যাচ্ছিলেন তৎকালীন বিরোধী দলীয় নেত্রী শেখ হাসিনা। কলারোয়ায় পৌঁছতেই সড়কে একটি বাস আড় করে দিয়ে তার পথরোধ করা হয়।

এতে জটলার সৃষ্টি হয়। সেই সুযোগে শেখ হাসিনার গাড়িবহরে হামলা চালানো হয়। হামলাকারীরা গুলি ছুড়ে, বোমা বিস্ফোরণ ঘটিয়ে তাণ্ডব সৃষ্টি করে। শেখ হাসিনার ব্যবহৃত গাড়ি ভাংচুর করা হয়।

শেখ হাসিনা প্রাণে রক্ষা পেলেও তার সফরসঙ্গী জেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক ইঞ্জিনিয়ার শেখ মুজিবুর রহমান, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ নেতা ফাতেমা জামান সাথী, আব্দুল মতিন, জোবায়দুল হক রাসেল এবং শহীদুল হক জীবনসহ অনেকেই আহত হন। একই সময় সাতক্ষীরার বেশ কয়েকজন সাংবাদিকও হামলার শিকার হন।

কলারোয়া মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মোসলেম উদ্দিন ২৭ জনকে আসামি করে কলারোয়া থানায় এ ঘটনায় মামলা করেন। কিন্তু থানায় রেকর্ড না হওয়ায় তিনি নালিশি আদালত সাতক্ষীরায় মামলাটি করেন। পরে এ মামলা খারিজ হয়ে যায়। তবে ২০১৪ সালের ১৫ অক্টোবর হাইকোর্টের নির্দেশে মামলাটি পুনরুজ্জীবিত হয়। এরপর সাবেক সংসদ সদস্য হাবিবুল ইসলাম হাবিবসহ ৫০ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দেন তদন্তকারী কর্মকর্তা ইন্সপেক্টর সফিকুর রহমান।


এ জাতীয় আরো খবর
এক ক্লিকে বিভাগের খবর