রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২, ০২:৩০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
শিরোনাম:
ডেমোগ্রাফিক ডিভিডেন্টের সুবিধা নিতে হলে শরীরচর্চার বিকল্প নেই – ডেপুটি স্পীকার গোবিন্দগঞ্জের সাঁওতাল নারীদের ক্রীড়া ও ঐতিহ্যবাহী তীর ছোড়া প্রতিযোগিতা ও সাংস্কৃতিক উৎসব গাইবান্ধা জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের আনুষ্ঠানিক দায়িত্ব গ্রহণ সাদুল্লাপুরে ব্যবসায়ী জ্যোতিশ চন্দ্র রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ কুড়িগ্রামে মহিষের গাড়ীতে বিয়ে আত্রাইয়ের মনিয়ারী ইউনিয়ন আ”লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত গোবিন্দগঞ্জে ইয়াবা ও ফেন্সিডিলসহ দুই মাদক ব্যবসায়ি আটক সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মামলা, প্রতিবাদে গাইবান্ধায় মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ গাইবান্ধা প্রেসক্লাবের কার্যনির্বাহী কমিটির বিশেষ সভা গাইবান্ধার তুলশিঘাটে বাস চাপায় নানি-নাতনি নিহত

তিন রানের আক্ষেপ আমার সারা জীবন থাকবে-গৌতম গম্ভীর

নিজস্ব প্রতিবেদক / ১১৬ বার পঠিত
প্রকাশের সময়: সোমবার, ১৮ নভেম্বর, ২০১৯, ৯:৫২ অপরাহ্ন

খোঁজ খবর ডেস্ক: ২০১১ সালের বিশ্বকাপ ফাইনালে সেঞ্চুরি হাতছাড়া হওয়ার জন্য তৎকালীন ভারতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনিকেই দোষ দিচ্ছেন গৌতম গম্ভীর। শ্রীলংকার বিপক্ষে বিশ্বকাপ ফাইনালে ২৭৪ রান তাড়া করতে নেমে শুরুতেই বীরেন্দ্র শেহবাগ এবং শচীন তেন্ডুলকারের উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে যায় ভারত। সেই সময়ে হাল ধরেন গম্ভীর। বিরাট কোহলি আউট হওয়ার পর ধোনির সঙ্গে জুটি বেঁধে ১০৯ রান করেন।

সেই ম্যাচে দুর্দান্ত ব্যাটিং করে সেঞ্চুরির ঠিক কাছেই ছিলেন গম্ভীর। শতরানের মাইলফলক স্পর্শ করতে আর মাত্র ৩ রান প্রয়োজন ছিল গম্ভীরের। সেই সময়ে থিপেরা পেরেরার শিকার হয়ে সাজঘরে ফেরেন গম্ভীর।

সেদিন সেঞ্চুরি মিস করা প্রসঙ্গে গৌতম গম্ভীর বলেন, ৯৭ রানে পৌঁছানোর আগে ব্যক্তিগত রান নিয়ে আমি মাথা ঘামাইনি। শ্রীলংকার রান তাড়া করা কীভাবে সম্ভব, তা নিয়েই চিন্তা-ভাবনা করছিলাম। একটা ওভারের পরে ধোনি এগিয়ে এসে আমাকে বলল, আর তিন রান করলেই সেঞ্চুরি হবে। সেটা শুনেই আমার ফোকাস নষ্ট হয়ে গিয়েছিল।

গম্ভীর আরও বলেন, ব্যক্তিগত রান নিয়ে চিন্তা করলেই রক্তের গতিবেগ বেড়ে যায়। ভুল-ভ্রান্তি বেশি হয়। তখন দলের টার্গেট নিয়ে চিন্তা-ভাবনা করলে হয়ত সেদিন সেঞ্চুরি হতো। প্যাভিলিয়নে ফেরার সময়েই বুঝে গিয়েছিলাম, এই তিন রানের আক্ষেপ আমার সারা জীবন থাকবে।


এ জাতীয় আরো খবর
এক ক্লিকে বিভাগের খবর