রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২, ০৬:১৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
শিরোনাম:
ডেমোগ্রাফিক ডিভিডেন্টের সুবিধা নিতে হলে শরীরচর্চার বিকল্প নেই – ডেপুটি স্পীকার গোবিন্দগঞ্জের সাঁওতাল নারীদের ক্রীড়া ও ঐতিহ্যবাহী তীর ছোড়া প্রতিযোগিতা ও সাংস্কৃতিক উৎসব গাইবান্ধা জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের আনুষ্ঠানিক দায়িত্ব গ্রহণ সাদুল্লাপুরে ব্যবসায়ী জ্যোতিশ চন্দ্র রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ কুড়িগ্রামে মহিষের গাড়ীতে বিয়ে আত্রাইয়ের মনিয়ারী ইউনিয়ন আ”লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত গোবিন্দগঞ্জে ইয়াবা ও ফেন্সিডিলসহ দুই মাদক ব্যবসায়ি আটক সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মামলা, প্রতিবাদে গাইবান্ধায় মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ গাইবান্ধা প্রেসক্লাবের কার্যনির্বাহী কমিটির বিশেষ সভা গাইবান্ধার তুলশিঘাটে বাস চাপায় নানি-নাতনি নিহত

ভারতে একদিনেই করোনায় প্রায় ১২০০ মানুষ মারা গেছেন

নিজস্ব প্রতিবেদক / ৮৫ বার পঠিত
প্রকাশের সময়: শুক্রবার, ১৬ এপ্রিল, ২০২১, ১০:৫০ পূর্বাহ্ন
সংগৃহিত ছবি

খোঁজ খবর ডেস্ক: ভারতে একদিনেই করোনায় প্রায় ১২০০ মানুষ মারা গেছেন। দেশটি এখন করোনাভাইরাসে মৃত্যুপুরীতে পরিণত হয়েছে। করোনাভাইরাস মহামারির দ্বিতীয় ঢেউয়ে দেশটিতে পর পর তিন দিন দৈনিক মৃত্যুর পরিসংখ্যান সহস্রাধিক ছাড়িয়ে গেছে।  ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে শুক্রবার এই তথ্য জানিয়েছে দেশটির নির্ভরযোগ্য গণমাধ্যম এনডিটিভি ও টাইমস অব ইন্ডিয়া।

এনডিটিভির খবরে বলা হয়েছে, ভারতে গত একদিনে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ২ লাখ ১৭ হাজার ৩৫৩ জন।  এ নিয়ে মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাড়ালো ১ কোটি ৪২ লাখ ৮৭ হাজার ৭৪০ জনে।  এই সময়ে মৃত্যু হয়েছে ১১৮৫ জনের।  এ নিয়ে মৃত্যুর পরিসংখ্যান বেড়ে ১ লাখ ৭৪ হাজার ৩০৪ জন হয়েছে।

করোনা আক্রান্তের সংখ্যায় বিশ্বে যুক্তরাষ্ট্রের পরই ভারত। টানা দ্বিতীয় দিনের মতো দেশটিতে দৈনিক সংক্রমণের সংখ্যা ২ লাখ ছাড়াল৷ বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রের চেয়ে ভারতে অনেক বেশি দ্রুত গতিতে ছড়াচ্ছে করোনাভাইরাস। পরিস্থিতি ক্রমশই ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে।

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ ভারতের দৈনিক মৃত্যুর সংখ্যাকেও বাড়িয়ে দিয়েছে। পর পর ৩ দিন হাজার ছাড়িয়েছে দৈনিক মৃত্যু। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে দেশটিতে মারা গেছে এক হাজার ১৮৫ জন। মহামারি শুরুর পর দেশটিতে করোনায় মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১ লাখ ৭৪ হাজার ৩০৮ জন। গত মার্চের শুরুতেও দেশটির দৈনিক মৃতের সংখ্যা ছিল ১০০-১৫০ ঘরে।

ভারতে করোনায় আক্রান্তদের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ১ কোটি ২৫ লাখ ৪৩ হাজার ৯৭৮ জন। সক্রিয় করোনা রোগীর সংখ্যা ১৫ লাখ ৬৩ হাজার ৫৮৮ জন। সুস্থতার হার ৯০ দশমিক ৮ শতাংশ। আর এখনও পর্যন্ত দেশটিতে কোভিড-১৯ টিকা নিয়েছেন ১১ কোটি ৪৪ লাখ ৯৩ হাজার ২৩৮ জন।

ভারতের রাজ্যগুলোর মধ্যে মহারাষ্ট্র, কেরালা, দিল্লি এবং কর্ণাটকের দৈনিক সংক্রমণ সবচেয়ে বেশি। কর্নাটক ও নয়াদিল্লিতে করোনা পরিস্থিতি ভয়াবহ।  ১৪৭৩৮ জন আক্রান্ত হয়েছেন কর্নাটকে।  আর দিল্লিতে গত ২৪ ঘণ্টায় ১৬ হাজার ৬৯৯ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।  নয়াদিল্লির রাজ্য সরকার রাত্রিকালীন কারফিউ জারি করেছে, বন্ধ রেখেছে শপিং মল। দেশটিতে করোনার টিকাদান কর্মসূচি পুরোদমে চলছে।  গত ২৪ ঘণ্টায় ২৭ লাখ মানুষকে টিকা দেওয়া হয়েছে।


এ জাতীয় আরো খবর
এক ক্লিকে বিভাগের খবর