রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২, ০৬:১৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
শিরোনাম:
ডেমোগ্রাফিক ডিভিডেন্টের সুবিধা নিতে হলে শরীরচর্চার বিকল্প নেই – ডেপুটি স্পীকার গোবিন্দগঞ্জের সাঁওতাল নারীদের ক্রীড়া ও ঐতিহ্যবাহী তীর ছোড়া প্রতিযোগিতা ও সাংস্কৃতিক উৎসব গাইবান্ধা জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের আনুষ্ঠানিক দায়িত্ব গ্রহণ সাদুল্লাপুরে ব্যবসায়ী জ্যোতিশ চন্দ্র রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ কুড়িগ্রামে মহিষের গাড়ীতে বিয়ে আত্রাইয়ের মনিয়ারী ইউনিয়ন আ”লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত গোবিন্দগঞ্জে ইয়াবা ও ফেন্সিডিলসহ দুই মাদক ব্যবসায়ি আটক সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মামলা, প্রতিবাদে গাইবান্ধায় মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ গাইবান্ধা প্রেসক্লাবের কার্যনির্বাহী কমিটির বিশেষ সভা গাইবান্ধার তুলশিঘাটে বাস চাপায় নানি-নাতনি নিহত

ক্রিস মরিস রাজস্থানকে জিতিয়ে দেখালে সবচেয়ে দামি খেলোয়াড় তিনি

নিজস্ব প্রতিবেদক / ২২১ বার পঠিত
প্রকাশের সময়: বৃহস্পতিবার, ১৫ এপ্রিল, ২০২১, ৯:২২ পূর্বাহ্ন
ক্রিস মরিস এবারের আইপিএলের সবচেয়ে দামি খেলোয়াড়

খোঁজ খবর ডেস্ক: ক্রিস মরিস এবারের আইপিএলের সবচেয়ে দামি খেলোয়াড়। ১৬ কোটি ২৫ লক্ষ টাকা দিয়ে তাকে দলে ভিড়িয়েছিল রাজস্থান রয়্যালস। সেই দামের মূল্য বৃহস্পতিবার (১৫ এপ্রিল) রাতে দলকে ৩ উইকেটে জিতিয়ে দেখালেন তিনি। তার ব্যাটিং তান্ডবে ২ বল ও ৩ উইকেট হাতে রেখেই দিল্লির দেওয়া ১৪৮ রানের লক্ষ্য পেরিয়েছে রাজস্থান। ১৮ বলে ৩৬ রান করেন তিনি। এক ম্যাচে হারের পর রাজস্থানের এটি এবারের আসরে প্রথম জয়।

ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে ১৪৮ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরুতেই ধরাশায়ী হয় রাজস্থান রয়্যালসের ব্যাটসম্যানরা। টপ অর্ডারের চার ব্যাটসম্যানই আউট হন দুই অঙ্কের সংখ্যায় পৌঁছার আগে। জস বাটলার ২, ভোহরা ৯, সাঞ্জু সামসন ৪ ও শিভাম দুবে ২ রানে ফিরে যান। একাই যা লড়েছেন ডেভিড মিলার। হাফসেঞ্চুরি পূর্ণ করে দলকে জয়ের আশা দেখাচ্ছিলেন তিনি। পরপর দুটি ছক্কাও হাঁকান তিনি। কিন্তু আর বেশিক্ষণ ক্রিযে টিকে থাকতে পারেবনি। আউট হন আভেস খানের বলে। তার আগে ৪৩ বলে ৭ চার ও ২ ছয়ে ৬৩ রান করেন তিনি। রাহুল টেওয়াটিয়া ১৭ বলে ১৯ রান করেন। দিল্লির হিয়ে ৩ উইকেট নেন আভেস খান। কাগিসো রাবাদা ও ক্রিস ওকস পান দুটি করে উইকেট।

ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে এর আগে টসে হেরে ১৪৭ রান সংগ্রহ করে দিল্লি ক্যাপিটালস। মোস্তাফিজুর রহমান ও জয়দেব উনাদকাটের বলে নাকাল ছিলেন দিল্লির ব্যাটসম্যানরা। তাদেরও টপ অর্ডারের তিন ব্যাটসম্যান দশের ঘরে না পৌঁছতেই সাজঘরে ফিরে যান। পৃথ্বী শ, শিখর ধাওয়ান ও আজিঙ্কা রাহানে এই তিনজনকেই শিকারে পরিণত করেন উনাদকাট। ঋষভ পন্ত দলের হয়ে সবচেয়ে বড় ইনিংস্টি খেলেন। ৩২ বলে ৯ চারে ৫১ রান করেন তিনি। শেষ দিকে টম কারেনের ২১, ললিত যাদবের ২০ ও ক্রিস ওকসের ১৫ রানে ১৪৭ রানের লড়াকু পুঁজি পায় দিল্লি। টম কারেনকে ফেরান মোস্তাফিজুর রহমান। তার আগে মার্কাস স্টোইনিসকেও আউট করেন তিনি। ফিজ ২৯ রান খরচায় নেন দুই উইকেট। উনাদকাট নেন ৩ উইকেট।


এ জাতীয় আরো খবর
এক ক্লিকে বিভাগের খবর