আজ ১৬ অগ্রহায়ণ, ১৪২৭, ১ ডিসেম্বর, ২০২০

গাইবান্ধায় ১ নভেম্বর থেকে কিন্ডারগার্টেন স্কুলগুলো খুলে দেওয়ার দাবিতে মানববন্ধন

স্টাফ রিপোর্টারঃ স্বাস্থ্যবিধি মেনে আগামী ১ নভেম্বর’ ২০২০ তারিখ হতে কিন্ডারগার্টেন স্কুল গুলো খুলে দেওয়া ও ভালো মানুষ গড়ার কারিগর কিন্ডারগার্টেন স্কুলের শিক্ষক/শিক্ষিকাদের দুঃখ দুর্দশা লাঘবের লক্ষে প্রতি মাসে নিয়মিত মাসিক সম্মানি ভাতা প্রদান এবং কিন্ডারগার্টেন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সমূহের উন্নয়নের সার্বিক সহযোগিতা প্রদানের দাবিতে গাইবান্ধায় মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। আজ সকাল সোয়া ১০টা থেকে সোয়া ১১টা পর্যন্ত গাইবান্ধা জেলা কিন্ডারগার্টেন ঐক্য পরিষদের ডাকে প্রায় সহস্রাধিক কিন্ডারগার্টেন শিক্ষক গাইবান্ধা শহরের ডিবি রোডে এই মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে। ১ নভেম্বর থেকে কিন্ডারগার্টেন স্কুলগুলো খুলে দেওয়া না হলে, আগামী ৭ নভেম্বর সংবাদ সম্মেলনসহ পরবর্তীতে গণ অনশনসহ বিভিন্ন কর্মসূচির ঘোষণা দেওয়া হয় মানববন্ধন থেকে। মানববন্ধন শেষে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবরে স্বারকলিপি প্রদান করা হয়।


মানববন্ধন চলাকালে বিভিন্ন দাবি দাওয়া নিয়ে বক্তব্য রাখেন গাইবান্ধা জেলা কিন্ডারগার্টেন ঐক্য পরিষদের সভাপতি আলহাজ্ব মো: আবেদ আলী সরকার, সিনিয়র সহ-সভাপতি মো: আবু রায়হান চাকলাদার, সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মো: মকবুল হোসেন, অতিরিক্ত সাধারণ সম্পাদক আবু রুহেল মো: শফিউর রহমান, গাইবান্ধা সদর উপজেলা কিন্ডারগার্টেন ঐক্য পরিষদের সভাপতি মো: নাহিদ হোসেন খান (শাহীন), ফুলছড়ি উপজেলা কিন্ডারগার্টেন ঐক্য পরিষদ সভাপতি মো: মোস্তাফিজার রহমান, সাঘাটা উপজেলা কিন্ডারগার্টেন ঐক্য পরিষদ সভাপতি মো: জুয়েল রানা মৃধা বাবু, সুন্দরগঞ্জ উপজেলা কিন্ডারগার্টেন ঐক্য পরিষদ সভাপতি মো: মাজেদুর রহমান, সাদুল্ল্যাপুর উপজেলা কিন্ডারগার্টেন ঐক্য পরিষদ সভাপতি মো: শামসুজ্জোহা রাঙ্গা প্রামানিক, পলাশবাড়ী উপজেলা কিন্ডারগার্টেন ঐক্য পরিষদ সভাপতি মো: আবুল কালাম আজাদসহ অন্যরা।


স্বারকলিপি ও মানববন্ধনে জানান হয়, গত ১৭ মার্চ হতে করোনা ভাইরাস জনিত কারণে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান অদ্যাবধি বন্ধ থাকায় শিক্ষার্থীরা দিন দিন বিভিন্ন অপকর্মে তথা-মদ, জুয়া, মাদকাসক্ত, বাল্যবিবাহ, মোবাইল আসক্তি, ধর্ষণ ইত্যাদির সাথে জড়িয়ে পড়ছে এবং দিন দিন মানসিক ভারসাম্য হারাচ্ছে। সেই সাথে দেশের ৭০% মেধাবী ছাত্র/ছাত্রী গড়ে তোলার কৃতিত্বের দাবিদার একমাত্র কিন্ডারগার্টেন স্কুলের শিক্ষক/শিক্ষিকাগণের নিরলস প্রচেষ্টাকে ধরে রাখতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহনের আহবান জানানো হয়। বক্তারা আরও বলেন, দীর্ঘ আট মাস যাবৎ গাইবান্ধা জেলার ৭৫০টি কিন্ডারগার্টেন স্কুলে প্রায় ১১ হাজার শিক্ষক/শিক্ষিকাসহ সমগ্র বাংলাদেশের ৬০ হাজার কিন্ডারগার্টেন স্কুলে প্রায় ৯ লাখ শিক্ষক/শিক্ষিকা বেতন অভাবে পরিবার-পরিজন নিয়ে অর্ধাহার-অনাহারে মানবেতর জীবন-যাপন করছে। এছাড়া কিন্ডারগার্টেন স্কুলের শিক্ষক/শিক্ষিকাদের করোনাকালীন কোনো প্রকার আর্থিক প্রণোদনা বা সাহায্য প্রদান করা হয় নাই। তারা আরও বলেন, মানসম্মত লেখাপড়া থেকে বঞ্চিত হওয়ায় শিক্ষার্থীদের তথা শিক্ষাব্যবস্থাকে বাঁচানোর জন্য বাঙ্গালি জাতির অহংকার ও গর্বের চিরবরণীয় ও চিরস্বরণীয় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের সুযোগ্য কন্যা বিশ্ব নন্দিত গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে প্রতি আহবান জানান।
স্বাস্থ্যবিধি মেনে কিন্ডারগার্টেন স্কুলগুলো আগামী খুলে দিয়ে শিক্ষার অস্থিত্ব রক্ষার জন্য আহবান জানান মানববন্ধনে অংশ নেয়া কিন্ডারগার্টেন স্কুল শিক্ষকরা।

ফেরদৌস জুয়েল, গাইবান্ধা প্রতিনিধি। ২৮.১০.২০২০। সেল: ০১৭১২৮৪৫৩৬৭।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর