মঙ্গলবার, ১৬ অগাস্ট ২০২২, ০৪:১৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
শিরোনাম:
দুই ছেলে ও স্ত্রী’র পাশে সমাহিত করা হয়েছে ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বী মিয়াকে গাইবান্ধায় ভুমিহীন ও গৃহহীনদের মধ্যে জমিসহ গৃহ হস্তান্তর গাইবান্ধায় স্কুল ছাত্রকে বস্তাবন্দি করে পানিতে চুবিয়ে হত্যা, তিন বন্ধু গ্রেফতার গাইবান্ধায় গৃহহীন ও ভূমিহীন মানুষদের ঘর বরাদ্দ উপলক্ষে জেলা প্রশাসকের প্রেস বিফ্রিং গাইবান্ধায় জেলা পরিষদের বৈদ্যুতিক পাখা বিতরণ পেঁয়াজ আমদানির ফলে কমেছে দাম ছেলে-বউয়ের নির্যাতনে ঘর ছাড়া বৃদ্ধা মা যমুনা গর্ভে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতল ভবন বিরাট দ্বিমুখী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ফার্নিচার মেলা, খেলাধুলা বন্ধ সৌদি আরবসহ মধ্যপ্রাচ্যে ঈদুল আজহা ৯ জুলাই

গাইবান্ধায় সাতদিনব্যাপী ফুড কনটেস্ট বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ

নিজস্ব প্রতিবেদক / ১৬০ বার পঠিত
প্রকাশের সময়: বৃহস্পতিবার, ৮ অক্টোবর, ২০২০, ৮:২৩ অপরাহ্ন

খোঁজ খবর রিপোর্ট: গাইবান্ধার ফুড লাভারস গ্রুপের উদ্যোগে ফেসবুক পেজে ২৮ সেপ্টেম্বর থেকে ৫ অক্টোবর পর্যন্ত সাতদিনব্যাপী ফুড কনটেস্ট অনুষ্ঠিত হয়। এ উপলক্ষে বৃহস্পতিবার জেলা শহর সংলগ্ন ঘাঘট নদীর পাড়ে স্থাপিত নান্দনিক রেস্টুরেন্ট ঘাঘট পাড় সেন্টার মিলনায়তনে পুরস্কার বিতরণ ও আলোচনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে ঘাঘট পাড় সেন্টারের সেফ মো. হাবিব খানের তৈরী লাল গাজর দিয়ে আকর্ষনীয় একটি ফুলের তোড়া প্রদর্শিত হয়।

ফুড লাভারস ফেসবুক পেজের এ্যাডমিন গাইবান্ধা জেলা এপেক্স ক্লাবের প্রেসিডেন্ট এ.এইচ এম মনোয়ার হোসেন লাভলুর সভাপতিত্বে এতে অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন গাইবান্ধা প্রেসক্লাবের সভাপতি কেএম রেজাউল হক, সাধারণ সম্পাদক আবু জাফর সাবু, ফটো সাংবাদিক কুদ্দুস আলম, অ্যাড. সরদার রোকনুজ্জামান পলাশ, ঘাঘট পাড় সেন্টারের স্বত্ত্বাধিকারী মাকসুদার আক্তার তনু প্রমুখ। এছাড়াও ফুড লাভারস গ্রুপের মডারেটরদের পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখেন আলিফ রহমান বিজয়, মাহীম ইবনে খুদি, রাকিবুল হাসান, আব্দুল্যাহ ইবনে খুরশিদ, সাহানা কেমি।

উল্লেখ্য, ফুড কনটেস্টে ৫১৬টি খাবারের ছবি নিয়ে ১৫৯ জন প্রতিযোগি স্বত:স্ফুর্তভাবে অংশ গ্রহণ করে। এতে ২২ হাজার ৩৯৮ জন লাইক এবং ১২ হাজার ৬৯০ জন কমেন্ট করে। এসমস্ত লাইক কমেন্ট ও বিচারক প্যানেলের মূল্যায়নের ভিত্তিতে ১৬ জনকে পুরস্কৃত করা হয়। প্রথম স্থান অধিকার করে মো. মেহেদী হাসান, দ্বিতীয় খাদিজা আকতার লতা এবং তৃতীয় হয়েছে ফারিয়া কবির বুসরা। এছাড়া আরও ১০ জনকে পুরস্কৃত করা হয়। তারা হলো- হামিদুল ইসলাম, মুর্তজা আফরোজ নাফিস, মামুন হোসেন, সুমাইয়া বিনতে মোর্শেদ মেধা, ইসতিয়াক রহমান, কনক রহমান, লিরা খান, মো. আসাদুজ্জামান রিয়াদ, এসএ নিজি ও শেখ মো. মোশারফ হোসেন। এছাড়া বাংলাদেশের অন্যতম ফটো সাংবাদিক কুদ্দুস আলমের নির্বাচনে সেরা ৩ জনকে পুরস্কৃত করা হয়। তারা হলেন- রওজাতুন্নাহার লাবণ্য, মো. হাবিব খান ও রায়হানুল ইসলাম কাজল। বিজয়ীদের ক্রেস্ট এবং নগদ অর্থ প্রদান করা হয়। এরমধ্যে প্রথম স্থান অধিকারকারি মেহেদী হাসান তার পুরস্কারের অর্থ শিশুদের খাদ্য বিতরণের জন্য ব্যয় করার ঘোষণা দেয়।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য যে, গাইবান্ধার মানুষের মধ্যে খাদ্য ও স্বাস্থ্য সচেনতা তৈরী এবং জেলায় গড়ে ওঠা উন্নতমানের নতুন নতুন রেস্টুরেন্ট, ক্যাাটারিং ও হোম ফুড ডেলিভারী সার্ভিসের তথ্য মানুষের কাছে পৌছে দেয়া এবং গ্রাহক রিভিউয়ের মাধ্যমে উন্নতমানের খাদ্য বিষয়ক প্রচার প্রচারণা চালানোর লক্ষ্যে গাইবান্ধার ফুড লাভারস গ্রুপটি এবছরের ২৪ জুলাই থেকে তাদের কার্যক্রম শুরু করেছে। বর্তমানে এ গ্রুপটির সদস্য সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৬ হাজার।


এ জাতীয় আরো খবর
এক ক্লিকে বিভাগের খবর