আজ ৯ আষাঢ়, ১৪২৮, ২৩ জুন, ২০২১

করোনা ভাইরাস আতঙ্কে কুড়িগ্রামের মানুষ

রৌমারী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধিঃ করোনা ভাইরাস আতংকে কুড়িগ্রাম জেলার রাজিবপুর উপজেলার বালিয়ামারী সীমান্ত ও ভারতের মেঘালয়ের কালাইয়ের চর সীমান্তের

নোম্যান্স ল্যান্ডে অবস্থিত সীমান্তহাটটি অনির্দিষ্ট কালের জন্য গত ২৯ জানুয়ারী থেকে এখন পর্যন্ত বন্ধ রয়েছে। সীমান্তহাট দিয়ে পণ্য আমদানি রপ্তানিতে সেখানে ভারতীয় নাগরিকদের যাতায়াত রয়েছে। ভারত ও নেপালে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হওয়ার খবরে এ হাটে করোনা ভাইরাস শনাক্তের কোন যন্ত্র না থাকায় কর্তৃপক্ষ হাট বন্ধের ঘোষণা দেন। বর্ডার হাটের ভেন্ডার সমিতির সভাপতি অবসরপ্রাপ্ত বিডিআরের নায়ক সুবেদার
সুরুজ্জামান জানান ২০১১ সালে বর্তমান সরকার দু’দেশের পরস্পরের মধ্যে আন্তরিক বজায় রাখার জন্য বর্ডার হাট প্রতিষ্ঠিত হয়। এতদিন কোনো সমস্যাই ছিলনা। বর্তমান চিনে কোরোনা ভাইরাস আতংকে সবার সমমতিক্রমে. ৩ হাট থেকে বন্ধ । এদিকে ৩ হাট থেকে বর্ডার হাট বন্ধ থাকায় বিক্রেতাদের অর্থনৈতিক সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে।
বর্ডার হাট বন্ধ থাকার বিষয়ে জানতে চাইলে, বালিয়ামারী ইউপি সদস্য বাবু. সাবেক ইউপি সদস্য ফরিজল হক.আজিজুর রহমান বলেন, করোনা ভাইরাস আতংকে বাংলাদেশের নিরাপত্তার কথা বিবেচনা করে সবার অনুমতি ক্রমে অনিদিষ্ঠ কালের জন্য বন্ধ ঘোষনা করেছে কর্তৃপক্ষ। এদিকে ক্রেতা ও বিক্রেতা হাবিবুর রহমান, আলীম উদ্দিনসহ আরো অনেকেই দাবি করে বলেন, গত ৩ হাট ধরে হাটের কার্যক্রম অনিদিষ্ট কালের জন্য বন্ধ থাকায় অর্থনৈতিক সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে। দ্রুত বালিয়ামারী বর্ডার হাটের কার্যক্রম চালু করা দাবি সীমান্তহাটের হাটের সাথে সংশ্লিষ্টদের।

এব্যাপারে রাজিবপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মেহেদী হাসান জানান, সংশ্লিষ্ঠ্য ব্যাটালিয়নের পরিচালক উপজেলা চেয়ারম্যান ও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সহ সীমান্তহাট কমিটির সদস্যদের সবার সর্বসম্মতিক্রমে বন্ধ করা হয়েছে। করোনা ভাইরাসে সারাদেশ আতংকিত রয়েছে। বিষয়টি বিবেচনা করে সময় মতো হার্টের কার্যক্রম চালু করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর