আজ ৯ আশ্বিন, ১৪২৮, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১

কেন্দুয়ার ছাত্রী ধর্ষণের মামলার আসামি মাদ্রাসার পরিচালক সাগর গ্রেফতার

নেত্রকোনা প্রতিনিধিঃ  নেত্রকোনার কেন্দুয়ায় মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক কর্তৃক ছাত্রী ধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্ত আব্দুল হালিম সাগরকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

তিনি উপজেলার রোয়াইলবাড়ি ইউনিয়নের চরআমতলা কোনাবাড়ী গ্রামের ফারুক মিয়ার ছেলে এবং আশরাফুল উলুম জান্নাতুল মা’ওয়া মাহিলা মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক।

ঘটনার পর থেকে পলাতক হালিমকে কিশোরগঞ্জ জেলার ভৈরব এলাকায় অভিযুক্তের বন্ধুর বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে বুধবার রাতে কেন্দুয়া থানায় নিয়ে আসে পুলিশ।

কেন্দুয়া থানার ওসি রাশেদুজ্জামান অভিযুক্ত হালিমকে গ্রেফতার সত্যতা নিশ্চিত করে গোপনীয়তার স্বার্থে এর বেশি কিছু বলেননি।

উল্লেখ্য, মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক দুই সন্তানের জনক আ. হালিম সাগর বিগত সাড়ে চার মাস পূর্বে ৫ম শ্রেণির শিশু ছাত্রীকে ধর্ষণ করে। এই ব্যাপারে কাউকে না বলতে মেরে ফেলার হুমকী প্রদান করে।

ঘটনার দুইমাস পর ছাত্রীটি অন্তঃস্বত্তা হলে পরিচালক কৃমিনাশক ট্যাবলয়েড খাওয়ান। পরবর্তীতে চলতি বছরের ১৮ জানুয়ারী পুনরায় ছাত্রীকে কলা খাওয়ালে তার গর্ভপাত ঘটে। এরপর থেকে ছাত্রীটির অতিরিক্ত রক্ষক্ষরণ শুরু হয়।

এতে গুরুতর অসুস্থ হলে ১৯ জানুয়ারী রাতে নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালে এনে ভর্তি করা হয়।

ছাত্রীটির মা বিগত চারবছর পূর্বে মারা যাওয়ায় বাবা ও বড় বোনই তাকে লালন-পালন করেছে।

এ ঘটনায় ভিকটিমের বাবা গত ১৯ জানুয়ারী থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত পরিচালক আব্দুল হালিম সাগর পলাতক ছিল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর